‘বডি ক্লক’-এর আবিষ্কর্তা তিনজন মার্কিন বিজ্ঞানীর নোবেল পুরষ্কার জয়

‘বডি ক্লক’-এর আবিষ্কর্তা তিনজন মার্কিন বিজ্ঞানীর নোবেল পুরষ্কার জয়

মানবদেহ যেভাবে সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে কাজ করে সেই ‘বডি ক্লক’-এর রহস্য উদ্ঘাটনের জন্য তিনজন বিজ্ঞানীকে চলতি বছর মেডিসিনে নোবেল পুরষ্কার দেয়া হয়েছে।

এই তিনজন মার্কিন বিজ্ঞানী হলেন জেফ্রি হল, মাইকেল রসবাস এবং মাইকেল ইয়ঙ।

সারকাডিয়ান রিদম নামে পরিচিত এই দেহ ঘড়ি পৃথিবীর ঘূর্ণনের সাথে তাল রক্ষা করে এবং মানবদেহের দৈনন্দিন কাজের সঙ্গে এর গভীর যোগাযোগ রয়েছে।

নোবেল প্রাইজ কমিটি বলছে, তাদের এই আবিষ্কার “আমাদের স্বাস্থ্য এবং শারীরিক সুস্থতার” ওপর ব্যাপক প্রভাব বিস্তার করেছে।

বডি ক্লকের জন্য রাতের বেলা আমাদের ঘুম আসে।

আমাদের মুড, সজাগ থাকা এমনকি হার্ট সমস্যার সাথেও এর যোগাযোগ রয়েছে।

এ সম্পর্কে আরো জানুন (ইংরেজিতে):

Body Clock

(15) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে




মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE